কাপড় ব্যবসায়ী হত্যার চেষ্টা মামলায় জলঢাকায় ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার-৩

জলঢাকা নির্বাচিত খবর শিরোনাম শীর্ষ খবর সারাদেশ


স্টাফ রিপোর্টারঃ
নীলফামারীর জলঢাকায় বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ী শাহ্ আরিফুর রহমান চৌধুরী হত্যার চেষ্টা মামলায় এক ছাত্রলীগ নেতাসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে চাইনিজ কুড়াল, রামদাসহ অপরাধের কাজে ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ দেশীয় তৈরী অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মাথাভাঙ্গা এলাকার মানিকুজ্জামানের ছেলে নাহিদ হাসান মিঠু (২২), মুদিপাড়া এলাকার দীনবন্ধু রায়ের ছেলে বিশাল রায় (২১), পূর্ব বালাগ্রাম এলাকার আতিয়ার রহমানের ছেলে রেজোয়ান ইসলাম (২২)। রেজোয়ান ইসলাম বালাগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। এ বিষয়ে রোববার সন্ধ্যা ৬টায় জেলা পুলিশ সুপার লিখিত প্রেস ব্রিফিং করেন। বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন জলঢাকা থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান। প্রেস ব্রিফিংয়ে জানা যায়, গত ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ ভোরে নিজ বাড়ী হতে নামাজের উদ্দেশ্যে জলঢাকা ভূমি অফিস সংলগ্ন মসজিদে আসার পথে ভোর অনুমান ৪.৫৫ মিনিটে উপজেলা রোড সবুজ সার ঘরের সামনে পৌছলে অজ্ঞাত নামা দুবর্ৃত্ত সন্ত্রাসীরা তার পথরোধ পূর্বক হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দ্বারা মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যপুরী আঘাত করে। উন্নত চিকিৎসার জন্য আরিফ চৌধুরীকে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে তিনি ঢাকা নিউরোসাইন্স মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পরবর্তীতে সন্ত্রাসী হামলার রহস্য উদঘাটনের জন্য পুলিশ সুপার, নীলফামারীর নির্দেশে একটি টিম গঠন করে অভিযান পরিচালনা করেন জলঢাকা থানাপুলিশ। লিখিত প্রেসব্রিফিংয়ে আরও জানা যায়, শনিবার মাথাভাঙ্গা এলাকা থেকে নাহিদ হাসান মিঠুকে প্রথমে গ্রেফতার করে। তার দেয়া তথ্যমতে বিশাল চন্দ্র এবং পরে ছাত্রলীগ নেতা রেজোয়ান ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তিতে তাদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা চেষ্টার মামলা এবং অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে এস.আই মোস্তানছির বিল্লাহ বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করেন। এবিষয়ে জলঢাকা থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা এবং অবৈধ অস্ত্র রাখার অপরাধের মামলায় জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।