কুমিল্লায় নিহত ৭ শিক্ষার্থীর পরিবারের পাশে জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম

নির্বাচিত খবর শিরোনাম

মর্তুজা ইসলাম, জলঢাকা প্রতিনিধিঃ পড়ালেখার টাকা জোগাড় করতে গিয়ে শুক্রবার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ট্রাকচাপায় ৭ শিক্ষার্থীর নিহতের ঘটনায় গোটা জেলা জুড়ে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষা প্রশাসনের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শনিবার সকাল ৮টায় শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের কর্নময়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে হাজার হাজার শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও সাধারন মানুষের উপস্থিতিতে লাশ হস্তান্তর করেন জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। এদিকে বিকেল ৩ ঘটিকার সময় নিহত শিক্ষার্থীদের পরিবারকে সান্তনা দিতে আসে জেলা শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম। তিনি সকলকে ধৈর্য ধরার আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন জলঢাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চঞ্চল কুমার ভৌমিক, ক্রিয়েটিভ হাসপাতালের অধ্যক্ষ রউফুল আলম, প্রধান শিক্ষক আশেকুর রহমান ও এনটিভির জলা প্রতিনিধি হাসান রাব্বী প্রধান প্রমুখ। নিহত শিক্ষার্থীরা হলেন জলঢাকা উপজেলার মীরগঞ্জ হাট বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র নিজপাড়া গ্রামের মানিক চন্দ্র রায়ের ছেলে তরুণ চন্দ্র রায় (১৫), রাম প্রসাদ চন্দ্রের ছেলে বিপ্লব কুমার রায় (১৫), অমল চন্দ্র রায়ের ছেলে প্রশান্ত রায় দীপু(১৫), জগদীশ চন্দ্র রায়ের ছেলে মৃণাল চন্দ্র রায় (১৬) ও জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. সেলিম (১৫)। অন্য দুইজন শিমুলবাড়ি এসসি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী শিমুলবাড়ি গ্রামের খোকারাম রায়ের ছেলে বিকাশ রায় ও শিমুলবাড়ি গ্রামের অমল চন্দ্র রায়ের ছেলে মনোরঞ্জন রায় । তারা লেখাপড়ার খরচ জোগাতে ও পরিবারকে সহযোগিতার জন্য মাঝেমধ্যে দিনমজুরি করত বলে স্বজনরা জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।